গুঠিয়ায় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সজীব’র আনারস মার্কার উঠান বৈঠকে জনতার ঢল

শুক্রবার, নভেম্বর ২৬, ২০২১

উজিরপুর প্রতিনিধি।।
আসন্ন তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২৮ নভেম্বর। এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের মনোনীত আনারস মার্কার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কণ্ঠ, গরীব দুখী মেহনতী মানুষের একান্ত আপনজন তরুণ সমাজ সেবক মোঃ ইজাজুল হক সজীব এর আনারস মার্কার পক্ষে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গুঠিয়ার জেড . এ . খান মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে কোরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠের মধ্য দিয়ে এ উঠান বৈঠক শুরু হয় । উঠান বৈঠকের আয়োজন করে ভোটার ও কর্মীসমর্থকরা। কর্মী-সমর্থক ছাড়াও বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে দল-মত নির্বিশেষে অসংখ্য ভোটারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে  অংশগ্রহণ করায় বৈঠকটি জন্মসূত্রে পরিনত হয়। এসময় ভোটাররা অবহেলিত গুঠিয়া ইউনিয়নে উন্নয়ন ফিরিয়ে আনতে আগামী ২৮ নভেম্বর তরুণ সমাজ সেবক মোঃ ইজাজুল হক সজীবের আনারস মার্কায় ভোট দেয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

উঠান বৈঠকে মোঃ ইজাজুল হক সজীব সহ উপস্থিত অনেকেই বক্তব্য রাখেন।

তারা তাদের বক্তব্যে বলেন , মোঃ ইজাজুল হক সজীব এলাকায় জনসেবার কারণে সাধারণ মানুষের কাছে অত্যন্ত আস্থাভাজন ব্যক্তি হিসেবে ব্যাপক সু-পরিচিতি লাভ করেছেন। গুঠিয়া ইউনিয়ন বাসীর বিপদে আপদে সবসময়ই পাশে ছিলেন তিনি। গভীর রাতে ডাক দিলেও আমরা সবসময় তাকে পাশে পেয়েছি। জনপ্রতিনিধি না হয়েও তিনি সব সময় অসহায় হতদরিদ্র মানুষের খোঁজ খবর রেখেছেন। এলাকার উন্নয়নমূলক কাজে তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা অপরিসীম। নিজস্ব অর্থায়নে রাস্তাঘাট সংস্কার করেছেন তিনি। করোনা কালীন সময়ে ইউনিয়নের অসহায় হতদরিদ্র সাধারণ মানুষের মাঝে তার সাধ্য অনুযায়ী ব্যক্তিগতভাবে বিভিন্ন ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করেছেন তিনি। দল-মত নির্বিশেষে ইউনিয়নের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ তার আচার-ব্যবহারে মুগ্ধ। গুঠিয়া ইউনিয়নে উন্নয়ন ফিরিয়ে আনতে আগামী ২৮ নভেম্বরের নির্বাচনে আমরা ইউনিয়ন বাসী ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে ভোটের মাধ্যমে মোঃ ইজাজুল হক সজীবের বিজয় সুনিশ্চিত করব ইনশাল্লাহ।

নিঃস্বার্থ তরুণ সমাজসেবক ও আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ ইজাজুল হক সজীব উঠান বৈঠকে বলেন, উজিরপুর উপজেলার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন গুঠিয়া। জনপ্রতিনিধি নয় জনগণের সেবক হবার চিন্তাধারা নিয়েই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি। আমি নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি না হয়েও বিগত দিনে সবসময়ই জনগণের সেবায় কাজ করেছি। আগামী ২৮ নভেম্বরের নির্বাচনে আপনারা যদি আমাকে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দিন তাহলে আমি নির্বাচিত হয়ে প্রথমেই অবহেলিত রাস্তাঘাটের সংস্কার করে জনসাধারণের চলাচলের সুব্যবস্থা করে দেবো। এছাড়াও গুঠিয়া ইউনিয়ন থেকে দূর্নীতি , বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং নির্মূল করে এ ইউনিয়নকে একটি রোল মডেল ইউনিয়ন হিসেবে রূপান্তর করবো, ইনশাআল্লাহ।