নলছিটিতে পর্নোগ্রাফি মামলায় যুবক গ্রেপ্তার

শনিবার, জুলাই ৩, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক//
ঝালকাঠির নলছিটিতে পর্নোগ্রাফি মামলায় মােঃ ফয়সাল আহাম্মেদ ( ৩২ ) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার ( ২ জুলাই ) সন্ধ্যা ৬ টার দিকে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া যুবক ফয়সাল আহাম্মেদ উপজেলার মোল্লারহাট ইউনিয়নের কামদেবপুর গ্রামের ফজলু হাওলাদারের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার কুশংগল ইউনিয়নের এক গৃহবধূর কয়েকমাস পূর্বে বিবাদী ফয়সাল আহাম্মেদ ( ৩২ ) নামে এক যুবকের সাথে মােবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয়। ফয়সাল বার বার ফোন দিয়ে গৃহবধূকে বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করে এবং ফুসলিয়ে ফেসবুকে বন্ধুত্ব করে। এরপর ইমাে ও ফেসবুক মেসেঞ্জারে তাদের মাঝে অডিও এবং ভিডিও কলে কথা হতাে । কিছুদিন যাওয়ার পর বিবাদী ফয়সাল গৃহবধূকে বিভিন্ন প্রকার প্রলােভন দেখাইয়া তার অজ্ঞাতে ভিডিও চ্যাটের স্ক্রীনশটের মাধ্যমে অশ্লীল স্থিরচিত্র ধারন করে এবং সেসব ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা দাবিসহ মানসিক নির্যাতন করে। গৃহবধূ টাকা দিতে অস্বীকার করলে মোবাইল ফোনে ধারণ করা আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয় ফয়সাল আহাম্মেদ। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে নলছিটি থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক মফিজুর রহমান জানান, বাদীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নলছিটি থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা লিপিবদ্ধ করা হয়। এ মামলার একমাত্র আসামি ফয়সাল আহাম্মেদ কে শুক্রবার সন্ধ্যায় আনুমানিক ছয় টার দিকে নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে গ্রেপ্তাতার করা হয়। এসময় আসামি ফয়সাল আহাম্মেদ এর কাছ থেকে পর্নোগ্রাফি সহ একটি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। তিনি আরো জানান, এছাড়াও ফয়সাল আহাম্মেদ পূর্বের একটি মার্ডার মামলার আসামি।

নলছিটি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এইচএম মাহমুদ বলেন, মামলার একমাত্র আসামি ফয়সাল আহাম্মেদ কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।