দ্বিতীয় বারের মতে মেম্বার হওয়ার পথে হাসান বিশ্বাস

শুক্রবার, জুন ১৮, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

আগামী ২১ জুন ইউপি নির্বাচন। নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের চরকয়া এলাকার বর্তমান মেম্বার হাসান বিশ্বাস দ্বিতীয় বারের মতো মেম্বার হওয়ার পথে। তার উন্নয়নশীল নানামুখী কর্মকাণ্ডের কারণে সমাজের মানুষ তাকে মোরগ মার্কায় ভোট দিয়ে পূনরায় মেম্বার নির্বাচিত করার লক্ষ্যে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। এলাকার মানুষের আলাপচারিতায় একজন সৎ ও যোগ্য নেতৃত্বের কথা উঠলে তার নামটি উঠে আসে সবার আগে।

গ্রামের উন্নয়নের চাকা সচল রাখতে ও সুখে দুঃখে মানুষের পাশে দাঁড়াতে পূনরায় ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন হাসান বিশ্বাস।

হাসান বিশ্বাস বলেন, আমি বিগত দিনে মেম্বার ছিলাম,আমার সামর্থ্য অনুযায়ী এলাকায় কিছু করার চেষ্টা করেছি।আমি ওয়ার্ডের মানুষের সাথে থাকতে চাই। তাদের সুখে দুঃখে সবসময় পাশে থাকতে চাই। আমার যতটুকু সামর্থ্য আছে তা দিয়ে সকলের উপকার করতে চাই।

এই প্রত্যাশা করে তিনি ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগণের কাছে দোয়া ও ভোট চেয়েছেন ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ৯নং ওয়ার্ডের কিছু অসম্পূর্ণ কাজকে সম্পন্ন করতে পূনরায় মেম্বার প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। তার ওয়ার্ডের মানুষের পাশে সর্বদা থেকেছেন। ওয়ার্ডের উন্নয়নের জন্য কাজ করেছেন। বয়স্কদের জন্য বয়স্ক ভাতার কার্ড, প্রতিবন্ধী কার্ডসহ সমাজের উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে নিজেকে নিয়োজিত করেছেন। সাধারণ মানুষের মুখে মুখে তার হাজারও উপকারের কথা শোনা যায়।

ওই ওয়ার্ডের এক বাসিন্দা বেল্লাল বলেন, গরিব ও মেহনতি মানুষের সুখে দুঃখে সব সময় মিন্টু সিকদার পাশে দাঁড়ান। তিনি একজন সাধারণ পরিবারের সন্তান। তাকে আমরা সকলেই ভালোবাসি। মেম্বার হিসেবে আমরা তাঁকেই চাই।’

মালেক চৌকিদার নামে আরেক বাসিন্দা বলেন, হাসান বিশ্বাস আমাদের প্রিয় একজন মানুষ। তার দ্বারা সমাজের মানুষের উপকার হয়েছে। সে দিন-রাত মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকে। সে কখনো কারো ক্ষতি করে নাই। আমাদের সাধারণ মানুষের দাবি পূনরায় আমরা মেম্বার হিসেবে দেখতে চাই।

আঃ লতিফ হাং, লিয়াকত আলী মৃধাসহ এলাকার একাধিক বাসিন্দারা জানান, হাসান বিশ্বাস আমাদের সুখে দুঃখে সব সময় পাশে থাকেন। তার দ্বারা সমাজের উন্নয়ন হবে। সাধারণ মানুষের উপকারে তিনি সর্বদা কাজ করেন। ওয়ার্ডের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ও আমাদের ওয়ার্ডকে আধুনিক ওয়ার্ড হিসাবে রুপান্তরিত করতে তালা মার্কায় ভোট দিয়ে আমরা তাকে আবারো জয়যুক্ত করবো।