ভোজ্যতেলের দাম লিটারে ৮ টাকা বাড়াতে চান ব্যবসায়ীরা

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৬, ২০২২

সয়াবিন তেলের দাম লিটারপ্রতি ৮ টাকা পর্যন্ত বাড়াতে চান ব্যবসায়ীরা। ভোজ্যতেল পরিশোধন কারখানাগুলোর সংগঠন বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার অ্যাসোসিয়েশন মূল্যবৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তার কথা জানিয়ে এ সপ্তাহে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছে।

জানতে চাইলে বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষ আজ বুধবার বিকেলে মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘সমিতি একটা প্রস্তাব দিয়েছে। কাল বৃহস্পতিবার আমরা এ নিয়ে আলোচনায় বসব। বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর প্রতিনিধিরা এতে উপস্থিত থাকবেন।’

আবেদনে সমিতি কী যুক্তি তুলে ধরেছে, এমন প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যসচিব বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্যবৃদ্ধির কথা বলেছে তারা। আন্তর্জাতিক বাজারে কতটুকু বেড়েছে, তা আমরা যাচাই করব।’

আবেদনে সমিতি আগামী শনিবার, অর্থাৎ ৮ জানুয়ারি থেকে বোতলজাত সয়াবিনের দাম বাড়িয়ে ১৬৮ টাকা করতে চায় বলে জানিয়েছে। বর্তমানে প্রতি লিটার তেল ১৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

সমিতি আরও বলেছে, এক মাস আগে, অর্থাৎ গত ৩ ডিসেম্বর থেকেই সয়াবিন তেলের দাম বাড়াতে চেয়েছিল তারা। কিন্তু মানুষের ক্রয়ক্ষমতার কথা বিবেচনা করে পরে সেখান থেকে সরে আসে। আমদানি ব্যয় এত বেড়েছে যে বর্তমান দামে বিক্রি করা সম্ভব হচ্ছে না। সয়াবিনের পাশাপাশি সমিতি পাম তেলের দামও বাড়াতে চায়।
জানা গেছে, পরিশোধন কারখানাগুলো গত নভেম্বর মাসে লিটারপ্রতি বোতলজাত সয়াবিন তেল ১৭২ টাকা নির্ধারণ করার কথা বলেছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে।

ট্যারিফ কমিশনের তথ্যানুসারে, দেশে বছরে প্রায় ২০ লাখ টন ভোজ্যতেলের চাহিদা আছে, যার ৯০ শতাংশই পূরণ হয় আমদানির মাধ্যমে।