বাংলাদেশ, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ১ ঘন্টার আগে
সর্বশেষ
  ||> ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত হত্যা মামলার রায় কাল  ||> রাজাপুর নারিকেলবাড়ীয়ায় মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট এর শুভ উদ্বোধন  ||> ক্যাসিনোকাণ্ডের পর হুইপ-এমপিসহ বিদেশ যেতে মানা যাদের  ||> বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের ডাকে, ঢাকা যাচ্ছেন রাজাপুর উপজেলার ঐক্য পরিষদের সদস্যরা।  ||> রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার দাবানল ২৪.কম এর নির্বাহী সম্পাদক কাজী ইরান  ||> সাংবা‌দিক‌দে ঐক্যবদ্ধতার বিকল্প নেই- ছাত‌কে বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ  ||> রক্ষক যখন ভক্ষক তখন মানুষের শেষ আশ্রয় স্হল কোথায়??  ||> ঝালকাঠিতে জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্টের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত  ||> ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ'র কমিটি গঠন। সভাপতি: সাজ্জাদ সম্পাদক: তালাল  ||> ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের আয়োজনে নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত  ||> ঝালকাঠিতে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত  ||> ঝালকাঠিতে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত  ||> ফেসবুকে উস্কানিমূলক বক্তব্য, খুলনায় সাংবাদিক গ্রেপ্তার  ||> সিলেট যাচ্ছেন ‘খালেদা জিয়া’  ||> ঝালকাঠি জেলার নবাগত অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে শুভেচ্ছা!  ||> ঝালকাঠিতে সুমন তালুকদারের ব্যতিক্রমী উদ্দোগ  ||> ময়মনসিংহের সেই লাগেজে মিলল মাথাবিহীন মরদেহ  ||> ভোলায় নিহতদের দাফন সম্পন্ন  ||>   ||> হাটহাজারীতে মন্দির রক্ষা করলো মাদ্রাসা ছাত্ররা

Dabanol 24


মসজিদে মুসল্লিদের জুতা সাজিয়ে রেখেই প্রশান্তি পান এক অমুসলিম!

সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৯ ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ

ধর্ম ডেস্ক : আল-মাওয়াদ্দাহ মসজিদ, সিঙ্গাপুর। প্রতি শুক্রবার এ মসজিদে ব্যতিক্রমধর্মী কাজে নিয়োজিত এক অমুসলিম যুবকের দেখা মেলে। প্রচণ্ড গরমেও মসজিদের বাইরে বসে মুসল্লিদের জুতাগুলো সোজা করে সারি সারিভাবে সাজিয়ে রেখে প্রশান্তি লাভ করে।

অ্যাংকল স্টিভেন। সে অমুসলিম। শুক্রবার শুধু মুসল্লিদের জুতা সোজা করে সাজিয়ে রাখায় আনন্দ পায় সে। এ আনন্দ অনুভূতি থেকেই প্রতি শুক্রবার সিঙ্গাপুরের আল-মাওয়াদ্দাহ মসজিদের সামনে চলে আসে।

ইমরান মুস্তাফা নামের এক স্কুল শিক্ষক মুসল্লি তার ফেসবুকওয়ালে তুলে ধরে এ ঘটনা। যা খবর আকাশের প্রকাশ করেছে ইলমফিড.কম।

ফেসবুকে ইরফান মুস্তাফা জানান, ‘মুসল্লিরা মসজিদে এসে যখন প্রচণ্ড সূর্যের তাপে বাইরে অবস্থান করতে পারে না। মসজিদের ভেতরে এসিতে নামাজ আদায় করে তখন অ্যাংকল স্টিভেন প্রচণ্ড গরমের মধ্যেই মুসল্লিদের জুতা সারি সারি করে সাজিয়ে রাখতে ব্যস্ত সময় পার করে।

অ্যাংকল স্টিভেন জানায়, মসজিদের বাইরে জুতাগুলো সারি সারি সাজিয়ে রাখলে সুন্দর দেখা যায়। আমি মসজিদের কাছাকাছিই থাকি এবং প্রতি শুক্রবার আসার চেষ্টা করি।

এ কাজটি আমি কেন করি, তা আমার জানা নেই তবে সারি সারি সাজানো জুতাগুলো দেখতে আমার ভালো লাগে। আর মসজিদে এসে এ কাজ করে আমি প্রশান্তি লাভ করি।

অ্যাকংল স্টিভেন অনুপ্রেরণাদানকারী সমাজ সচেতন মানুষ। সাজানো-গোছানো ও সুন্দর পরিপাটি যে কোনো জিনিস দেখতে কার না ভালো লাগে? ভালো কাজ করতে চাইলে যে কোনো সময় যে কোনো জায়গা থেকেই করা যায়। প্রয়োজন শুধু একটি ইতিবাচক মানসিকতার।

অমুসলিম হয়েও অ্যাংকল স্টিভেন মুসলিমদের অগোছালো জুতাগুলো সারি সারি সাজিয়ে রেখে সেই ইতিবাচক মানসিকতা পরিচয় ও অনুপ্রেরণা তুলে ধরেছেন। শুভ কামনা অ্যাংকল স্টিভেনের প্রতি…

Facebook Comments

পাঠকের মতামত: