বাংলাদেশ, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ১৯ ঘন্টা আগে
সর্বশেষ
  ||> শিশুদের মাঝে সিটিজেন ফাউন্ডেশনের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ  ||> ঝালকাঠিতে ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড  ||> র‌্যাবের অভিযানে প্যানেল চেয়ারম্যানসহ ৮ মাদক ব্যবসায়ী আটক  ||> মাহফিলের পর আটক হলেন ইসলামি বক্তা আব্দুল্লাহ্ আল আমিন  ||> গরু কচুরিপানা খেতে পারলে আমরা পারব না কেন : পরিকল্পনামন্ত্রী  ||> অবৈধ পাসপোর্ট করার চেষ্টায় এক রোহিঙ্গা আটক  ||> মেট্রোরেল এখন ঢাকায়  ||> গার্মেন্টস কারখানায় নামাজ বাধ্যতামূলক!  ||> লিটন তালুকদারের কাব্যগ্রন্থ বাসযোগ্য একখন্ড জমিচাই  ||> মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা আবদুস সুবহানের মৃত্যু  ||> ঝালকাঠিতে ‘গরীবের বন্ধু’ সংগঠনের ভিন্নধর্মী আয়োজনে বর্ষপুর্তি পালন  ||> নকলের দায়ে নলছিটিতে ৫ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার  ||> মুজিববর্ষে নির্মান করা হচ্ছে জাতির পিতার ম্যুরাল চিত্র ঝালকাঠি পৌরমেয়রের ভিন্নধর্মী আয়োজন  ||> একুশে বই মেলায় প্রকাশ পাচ্ছে রিজভীর প্রথম গ্রন্থ ঢাকার উন্নয়নে নবাবের ভূমিকা  ||> বেতন কর্তনের আদেশের পর সাক্ষী এলেন আদালতে  ||> আবারো মন্ত্রী হচ্ছেন আমু  ||> আবারো মন্ত্রী হচ্ছেন আমু  ||> নলছিটির তালতলা বাজারে চুরির ঘটনায় আতঙ্কিত ব্যবসায়ীরা  ||> নলছিটিতে ইভটিজিং, যুবক'র কারাদণ্ড  ||> বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলটকে হুমকিদাতা গ্রেফতার

Dabanol 24


ঝালকাঠিতে ফের সক্রিয় লিটু-কমল ফেন্সিডিল ব্যবসায়ী চক্র।

সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৯ ৬:৪৪ অপরাহ্ণ

দাবানল ডেস্কঃ ঝালকাঠিতে আবারো সক্রিয় মাদক ব্যবসায়ীরা।একাধিক বার মাদক আটক মাদক ব্যবসায়ীরা ফের সক্রিয়। এদের মধ্যে একাধিক বার ফেন্সিডিল ও ইয়াবাসহ আটক হওয়া শহরের ডাক্তার পট্টী রোডের লিটু ওরফে বড় মিয়া এবং বাহের রোডের কমল শীল ওরফে সেলুন কমলকে আবারো মাদক ব্যবসায়ে সক্রিয় দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে একটি নির্ভরযোগ্য সুত্র।


নির্ভরযোগ্য সুত্রে জানা যায়,এই মাদক ব্যবসায়ী চক্র দীর্ঘ সময় ধরে ঝালকাঠিতে তাদের মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে যাচ্ছে একাধিক বার ফেন্সিডিল ও ইয়াবাসহ গ্রেফতার হলেও কোনো উচ্চ মহলের তদবিরে বারবার আইনের ফাঁক দিয়ে বেরিয়ে আসে।

ডাক্তার পট্টী রোডের লিটুর সম্পর্কে এলাকাবাসী জানায় যে,এই লিটুর প্রকৃত বাড়ি পোনাবালিয়া ইউনিয়নে হলেও মাদক ব্যবসার কারনে ডাক্তার পট্টী রোডের শশুর বাড়ীতে অবস্থান করেন।এলাকাবাসী জানায় যে মাদক ব্যবসায়ী লিটু নিজেকে পুলিশের এক বড় কর্তার সোর্স হিসেবে দাবী করেন এবং এই বড় কর্তা নাকি তাকে বরাবর রক্ষা করেন বলে প্রচার করেন।

অপর দিকে কিছুদিন আগে জেল থেকে ছাড়া পাওয়া কমল শীল ওরফে সেলুন কমল জেল থেকে মুক্তি পেয়েই লিটুর সাথে তাল মিলিয়ে মাদক ব্যবসায় ফের সক্রিয় হয়ে পরে।

দীর্ঘদিন ধরে নিজস্ব অনুসন্ধানে দেখা যায় যে,প্রায়ই দুপুরের আগে সকাল ১০/১১ দিকে কমল অথবা তার স্ত্রী লিটুর বাসাতে আসে মাদক (ফেন্সিডিল) রেখে যায় এর পরেই ঝালকাঠির চিহ্নিত মাদকসেবীরা দুপুরের পর পর লিটুর বাসার আশেপাশে ঘুরঘুর করে এবং বিকাল পর্যন্ত এভাবে চলতে থাকে মাদকের কেনা-বেচা এরপর সন্ধ্যার পর আবারো কমল অথবা তার স্ত্রী আবারো লিটুর বাসাতে এসে মাদক বিক্রির টাকা নিয়ে যায়।ফেন্সিডিলের ডিলার কমল শীল এর খুচরো বিক্রেতা হিসেবে কাজ করে লিটু।

Facebook Comments

পাঠকের মতামত: