বাংলাদেশ, ২১শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ১১ ঘন্টা আগে
সর্বশেষ
  ||> স্ত্রীকে তালাকের পর দুধ দিয়ে গোসল, গ্রামে খিচুড়ি উৎসব  ||> রাজশাহীতে উপজেলা পর্যায়ে আইন সহয়তা সদস্যদের ওরিয়েন্টেশন  ||> সাতক্ষীরায় রাস্তায় ইট বা‌লি রে‌খে জনগণের চলাচলে বিঘ্ন সৃ‌ষ্টির দায়ে দুইজ‌নের কারাদণ্ড  ||> ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে জরুরী অবস্থায় সিভিল সার্জন ও আরএমও না আসায় নাগরিক ফোরামের ক্ষোভ প্রকাশ  ||> ঝালকাঠিতে শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরন  ||> ১ কোটি বাংলাদেশি মুসলিমকে ফেরত পাঠানো হবে: বিজেপি নেতা  ||> ঝালকাঠিতে বিয়ের খাবার খেয়ে অসুস্থ শতাধিক  ||> দশম বারের মতো বরিশাল রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার এম এম মাহমুদ হাসান  ||> সাংবাদিক শিমুলের ওপর হামলার ঘটনায় বিএমএসএফ'র প্রতিবাদ  ||> ফের বৃষ্টির পূর্বাভাস, আসছে শৈত্যপ্রবাহও  ||> ঝালকাঠি আইনজীবী সমিতির নির্বাচন ৩০ জানুয়ারি  ||> ঝালকাঠি রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি গঠন  ||> ঝালকাঠি রাজাপুরে শীতলপাটি উন্নয়ন মূলক সমবায় সমিতির ঘরে ডিআইজির মতবিনিময় সভা  ||> যেসব বই পড়ে ডিগ্রি দেয়া হচ্ছে তা কর্মজীবনে কাজে আসছে না  ||> দেশবাংলা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম  ||> লক্ষ্মীপুরের সাংবাদিক দম্পত্তির ওপর হামলার ঘটনায় বিচার দাবি করছে বিএমএসএফ  ||> ফের কাঁপাবে শীত ঝরবে বৃষ্টি, দুঃসংবাদ আবহাওয়ার  ||> নানা অজুহাতে বাড়ছে দাম, অস্থির ভোজ্যতেলের বাজার  ||> বঙ্গবন্ধু বিপিএলের শিরোপা লড়াই আজ  ||> ঝালকাঠিতে আন্ত: প্রাথমিক বিদ্যালয় বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

Dabanol 24


মায়ের দেয়া ২০০ টাকায় সাদিয়া এখন পুলিশ

জুলাই ৫, ২০১৯ ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ

দুলাভাইয়ের দেয়া ২০০ টাকা দিয়ে পুলিশে আবেদন করি। যেদিন পুলিশ লাইন্সে দাঁড়াব সেদিন অন্যের বাড়িতে কাজ করে ২০০ টাকা এনে দেন মা। ওই টাকা নিয়ে নাটোরে গিয়ে পুলিশ লাইন্সে দাঁড়াই আমি।

এরপর শারীরিক, লিখিত এবং মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হই। এখন চাকরি পাওয়ার পর মনে হচ্ছে মায়ের ২০০ টাকাই আমার জন্য আর্শীবাদ। চোখে আনন্দ অশ্রু আর শত কষ্ট ছাপিয়ে এভাবে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি পাওয়ার বর্ণনা দিয়েছেন নাটোরের সিংড়া উপজেলার পাকুরিয়া গ্রামের হতদরিদ্র জবদুল প্রামাণিকের মেয়ে সাদিয়া সুলতানা।

জানা যায়, সিংড়ার প্রত্যন্ত এলাকা পাকুরিয়া গ্রাম। গ্রামের মাটির ঘরে বেড়ে ওঠা সাদিয়া সুলতানার। সাদিয়ার বাবার দুই স্ত্রী। প্রথম স্ত্রীর ঘরে সাদিয়ার মাসহ পাঁচজনের বসবাস। সাদিয়ার বাবা দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকায় বসবাস করেন। খোঁজ রাখেন না তাদের। মা হাজেরা বেগম অন্যের বাড়িতে কাজ করে তিন মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। অন্যের বাড়িতে কাজ করে যা আয় হয় তা দিয়ে সংসার আর সাদিয়ার পড়াশোনার খরচ চলে। সাদিয়া চলনবিল মহিলা ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। চার বোনের মধ্যে সাদিয়া সবার ছোট।

সাদিয়া সুলতানার মা হাজেরা বেগম বলেন, যখন পুলিশ নিয়োগের সার্কুলার দেয়া হয় তখন আমার বড় মেয়ের জামাই ইসমাইল হোসেন ফোনে সাদিয়াকে আবেদন করতে বলেন। সাদিয়া তখন আবেদন করতে চায় না। তার দুলাভাইকে বলে টাকা ছাড়া চাকরি হবে না, শুধু শুধু আবেদন করে কী লাভ। তারপরও দুলাভাইয়ের কথা অনুযায়ী সাদিয়া ২০০ টাকা নিয়ে আবেদন করে। পরে লাইনে দাঁড়ালে তার চাকরিটা হয়। আমার বিশ্বাস হয়েছে টাকা ছাড়া সরকারি চাকরি হয়।

পুলিশের কনস্টেবল পদে আগে থেকে বিনা টাকায় নিয়োগ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন নাটোরের পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন। মাত্র ১০০ টাকার বিনিময়ে চাকরি পাওয়া যাবে পুলিশের এমন ঘোষণার পর অনেকে বিষয়টি হাস্যকর বলেছেন। কিন্তু বিনা টাকায় চাকরি দিয়ে সে কথা রেখেছেন পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন।

Facebook Comments

পাঠকের মতামত: