বাংলাদেশ, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ২ ঘন্টা আগে
সর্বশেষ
  ||> ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত হত্যা মামলার রায় কাল  ||> রাজাপুর নারিকেলবাড়ীয়ায় মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট এর শুভ উদ্বোধন  ||> ক্যাসিনোকাণ্ডের পর হুইপ-এমপিসহ বিদেশ যেতে মানা যাদের  ||> বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের ডাকে, ঢাকা যাচ্ছেন রাজাপুর উপজেলার ঐক্য পরিষদের সদস্যরা।  ||> রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার দাবানল ২৪.কম এর নির্বাহী সম্পাদক কাজী ইরান  ||> সাংবা‌দিক‌দে ঐক্যবদ্ধতার বিকল্প নেই- ছাত‌কে বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ  ||> রক্ষক যখন ভক্ষক তখন মানুষের শেষ আশ্রয় স্হল কোথায়??  ||> ঝালকাঠিতে জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্টের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত  ||> ঝালকাঠিতে বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ'র কমিটি গঠন। সভাপতি: সাজ্জাদ সম্পাদক: তালাল  ||> ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের আয়োজনে নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত  ||> ঝালকাঠিতে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত  ||> ঝালকাঠিতে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত  ||> ফেসবুকে উস্কানিমূলক বক্তব্য, খুলনায় সাংবাদিক গ্রেপ্তার  ||> সিলেট যাচ্ছেন ‘খালেদা জিয়া’  ||> ঝালকাঠি জেলার নবাগত অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে শুভেচ্ছা!  ||> ঝালকাঠিতে সুমন তালুকদারের ব্যতিক্রমী উদ্দোগ  ||> ময়মনসিংহের সেই লাগেজে মিলল মাথাবিহীন মরদেহ  ||> ভোলায় নিহতদের দাফন সম্পন্ন  ||>   ||> হাটহাজারীতে মন্দির রক্ষা করলো মাদ্রাসা ছাত্ররা

Dabanol 24


মুক্তিপণের জন্য তিন বন্ধু মিলে হত্যা করলো সহপাঠীকে

মে ৩১, ২০১৯ ১০:৪৯ অপরাহ্ণ

দাবানল অনলাইন ডেস্কঃ কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মুক্তিপণের জন্য তিন বন্ধু মিলে হত্যা করেছে সহপাঠীকে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে শহরের দক্ষিণপাড়া এলাকার মালিক আবুবকর সিদ্দিকের ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার সকালে ঘটনাটি টের পেয়ে হত্যাকারী তিন বন্ধুকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন ভবনের মালিক আবুবকর সিদ্দিক।

নিহতের নাম ফারদিন আলম রুপক (১৬)। সে ভৈরব বাজারের টিনপট্টি এলাকার বিপ্লব মিয়ার ছেলে। হত্যাকারীরা হলো, ফজলে রাব্বি পিয়াল(১৬), আরাফাত পাটোয়ারী রাব্বি (১৬) ও রেজাউল কবির খান (১৭)।

তাদের বাড়ি ভৈরবপুর দক্ষিণপাড়া এলাকায়। এদের মধ্যে ফজলে রাব্বি পিয়াল ভবনমালিক আবুবকর সিদ্দিকের নাতি। বাকি দুজন তার বিল্ডিংয়ের ভাড়াটিয়া।

চার বন্ধুই ভৈরব শহরের কে বি পাইলট হাইস্কুলের ছাত্র। এবার তারা সবাই এসএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে।

পুলিশ ও স্বজনরা জানায়, বৃহস্পতিবার রাত প্রায় ৯টার দিকে আরাফাত পাটোয়ারী তার বন্ধু রুপককে মোবাইলে জরুরি কথা আছে বলে ওই ভবনে আসতে বলে। এর আগে সে তার দুই বন্ধু ফজলে রাব্বি পিয়াল ও রেজাউল কবিরের সঙ্গে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত নেয় রুপককে ডেকে এনে তার বাবার কাছে মুক্তিপণের টাকা চাইবে। এদিকে রুপক বন্ধুর ফোন পেয়ে দ্রুত সেখানে যায়।

তিন বন্ধু মিলে রূপককে জাপটে ধরলে সে বাচাঁর চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে তার গলায় রশি দিয়ে পেঁচিয়ে ধরলে সে অজ্ঞান হয়ে যায়। তারপর ভয়ে তারা তার গলায় ছুরি চালালে সে ঘটনাস্থলেই মারা হয়। এরপর রাতেই তিনজন মিলে বস্তায় তার লাশ ভর্তি করে ছাদে রেখে সবাই যার যার বাসায় চলে যায়।

শুক্রবার সকালে ভবনের মালিক লাশের গন্ধ পেয়ে ছাদে গিয়ে বস্তাটি দেখতে পায়। পরে তার নাতীসহ তিনজনকে আটক করে। পরে তিনি এলাকার পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক আহমেদ সৌরভ ও স্থানীয় কাউন্সিলর দ্বীন ইসলামকে ঘটনাটি জানান।

ভবন মালিকের কাছ থেকে জানতে পেরে আতিক আহমেদ পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ ওই ভবনের ছাদ থেকে রুপকের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় হত্যায় জড়িত তিন বন্ধুকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। তারা পুলিশের কাছে রুপককে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।

ভৈরব থানার ওসি মো. মোখলেছুর রহমান জানান, মুক্তিপণের টাকা আদায়ের জন্যই তিন বন্ধু মিলে রুপককে হত্যা করে। তারা পুলিশের কাছে হত্যার ঘটনা স্বীকার করেছে।

Facebook Comments

পাঠকের মতামত: