বাংলাদেশ, ১লা জুন, ২০২০ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ২৯ মিনিট আগে
সর্বশেষ
  ||> রক্তযোদ্ধাদের সংগঠন প্রতিক্ষনের ভিন্নধর্মী প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন  ||> PBRB-এর ১২ তম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে পটুয়াখালী জেলার বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি  ||> করোনা তহবিলে ঈদ সালামির টাকা দান করলেন জুই  ||> মাস্ক না পরে বের হলেই ছয় মাসের কারাদণ্ড বা লাখ টাকা জরিমানা  ||>   ||> হাতীবান্ধায় পরিক্ষায় ফেল করায় আত্মাহত্যা ১ ছাত্রীর  ||> খুলনা রেঞ্জের ১০ টি জেলার সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মাসিক অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত।  ||>   ||> অনলাইন পত্রিকাগুলো করোনাকালে দায়িত্বশীল ভুমিকা রাখছে  ||> ঝালকাঠিতে ছাগলে গাছ খাওয়াকে কেন্দ্র করে বৃদ্ধকে লাঞ্ছিত, যুবককে গণধোলাই  ||>   ||> ঝালকাঠিতে উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিস কেয়ারটেকার সন্ত্রাসি হামলার শিকার  ||> রেকর্ড ৪০ জনের মৃত্যু করোনায়, নতুন শনাক্ত ২৫৪৫  ||> কাল থেকে এসএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন শুরু  ||> এসএসসি-সমমানে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ  ||> আয়োজিত হতে যাচ্ছে প্রতিক্ষণ ব্লাড রিজার্ভেশন অব বাংলাদেশ এর ১১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  ||> আদর্শ ছাত্র বন্ধু ফাউন্ডেশনের আহ্বায়ক নিয়োগ পেলেন পরিমল চন্দ্র বসুনিয়া  ||> ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় আম্ফানে ভাঙ্গন কবলিত বিষখালী নদীর তীরে বেড়িবাঁধ নির্মানণর দাবীতে মানববন্ধন  ||> ঝালকাঠির রাজাপুরে বিয়ের প্রলোভনে অর্থ আত্মসাতকারী প্রতারক চক্রের সদস্য মা-মেয়েকে আটক করেছে ব্যার-৮  ||> করোনার মধ্যে সাধারণ সভা করবে ঝালকাঠি সিটিক্লাব

Dabanol 24


কিশোরগঞ্জের ইটনায় পুলিশের উপ পরিদর্শকের হাতে চড় খেলেন ইউপি চেয়ারম্যান

মে ৩০, ২০১৯ ১:০১ পূর্বাহ্ণ

দাবানল অনলাইন ডেস্কঃ কিশোরগঞ্জের ইটনায় প্রতিবন্ধী মাছ ব্যবসায়ীর সঙ্গে অসদাচরণ করাকে কেন্দ্র করে তুলকালাম কাণ্ড ঘটেছে। এ ঘটনাকে ঘিরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গে থানার এক পুলিশ কর্মকর্তার হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

মাছ ব্যবসায়ীকে বকাঝকার প্রতিবাদ করায় ইটনা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. রুকনের বিরুদ্ধে সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম সোহাগকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় উপস্থিত মাছ ব্যবসায়ীরা উত্তেজিত হয়ে ওই উপ- উপ-পরিদর্শককে ও মারধর করে বলে জানা গেছে। বুধবার বিকেলে ইটনা উপজেলা সদরের মাছ বাজারে এ অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার জের ধরে পুলিশ সদস্যরা ইউপি চেয়ারম্যানের বাসায় গিয়ে জিনিসপত্র তছনছ ও ভাঙচুর করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান। তবে চেয়ারম্যানকে মারধর ও ভাঙচুরের অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ।

চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম সোহাগ জানান, বিকেলে তিনি বাজারে মাছ কিনতে গিয়ে দেখেন ইটনা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. রুকন মাছ কিনতে গিয়ে স্থানীয় প্রতিবন্ধী মাছ ব্যবসায়ী তনু মিয়াকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করছেন। জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি পুলিশের এ কর্মকর্তার আচরণের প্রতিবাদ করি। কিন্তু তিনি উত্তেজিত হয়ে হঠাৎ সবার সামনে আমাকে থাপ্পড় মারেন। নিজেকে সামাল দিতে না পেরে আমিও তাকে থাপ্পড় মারি। পরে ব্যবসায়ীরা ওই পুলিশকে মারধর করে।’

তিনি বলেন, কিছুক্ষণ পর উপ-পরিদর্শক রুকনের নেতৃত্বে ১০-১২ জন পুলিশ আমার নয়াহাটির বাসা ভাঙচুর করাসহ ঘরের জিনিসপত্র তছনছ করে। তখন আমি উপজেলা পরিষদের দিকে ছিলাম।

এ বিষয়ে উপ-পরিদর্শক মো. রুকনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

ইটনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলামের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, এ ঘটনাটি বিভিন্ন মাধ্যমে আমি শুনেছি। কিন্তু কেউ আমার কাছে এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ নিয়ে আসেনি।

ইটনা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মুর্শেদ জামানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যানের সঙ্গে পুলিশ কর্মকর্তা রুকনের তর্কাতর্কি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় চেয়ারম্যান ও তার লোকজন রুকনকে মারধর করে। তবে চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ সঠিক নয়।

পাঠকের মতামত:

[wpdevart_facebook_comment facebook_app_id="322584541559673" curent_url="" order_type="social" title_text="" title_text_color="#000000" title_text_font_size="22" title_text_font_famely="monospace" title_text_position="left" width="100%" bg_color="#d4d4d4" animation_effect="random" count_of_comments="3" ]