বাংলাদেশ, ১৫ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ২ ঘন্টা আগে
সর্বশেষ
  ||> টয়লেটে নবজাতকের মরদেহ, গ্রেফতার মা  ||> প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ  ||> টাইগারদের তোপে ব্যাটিং বিপর্যয়ে আফগানিস্তান  ||> নলছিটি গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ'র ৪তলা নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন  ||> নলছিটিতে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ  ||> নলছিটিতে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ  ||> নলছিটিতে ইউপি সদস্যের হামলায় ভোটার হতে আসা যুবক হাসপাতালে  ||> বার কাউন্সিল পরীক্ষা প্রস্তুতি ২০১৯ (পর্ব-১২) আরজি- আদেশ-৭  ||> ভূমিহীনদের জমি দখল করছে প্রভাবশালীরা  ||> বরিশালের সন্তান জয় বললেন ছাত্রলীগই আমার আবেগ উচ্ছ্বাস নির্ভরতা  ||> সড়ক পথে যোগাযোগের স্বপ্ন পূরনের পথে সুগন্ধা নদীর উপর মিলন সেতু নির্মানের প্রস্তাব চুরান্ত  ||> ঝালকাঠি সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক বজলুর রশিদ-এর মালয়েশিয়া গমন  ||> কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি হলেন বরিশালের সন্তান আল নাহিয়ান খান জয়  ||> আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে  ||> ছাত্রলীগের পদ হারালেন শোভন-রাব্বানী  ||> ঝালকাঠিতে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীদের আর্থিক সহায়তা  ||> ঝালকাঠিতে ৪৮ তম গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত  ||> পা চেপে ধরে কুকুরকে দিয়ে খাওয়ানো হলো ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ  ||> ১০৬ রানে ভারতকে আটকে দিল বাংলাদেশের যুবারা  ||> প্রধানমন্ত্রী রাজশাহী যাচ্ছেন রোববার

Dabanol 24


হবিগঞ্জে বউ-শাশুড়ি খুন

মে ১৪, ২০১৮ ১০:০১ পূর্বাহ্ণ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জে লন্ডনপ্রবাসী এক ব্যক্তির মা ও স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।রোববার রাত ১১টার দিকে নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের সাদুল্লাপুরগ্রামে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে বলে নবীগঞ্জ থানার ওসি এসএম আতাউর রহমান জানান। নিহতরা হলেন- ওই গ্রামের লন্ডন প্রবাসী আকলাক চৌধুরীর মা মালা বেগম (৫০) এবং স্ত্রী রুমি বেগম (২২)।

স্থানীয়রা জানান, মৃত রাজা মিয়ার ছেলে আকলাক দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। দুই বছর আগে একই গ্রামের রুমির সঙ্গে তার বিয়ে হয়। ওই বাড়িতে কেবল মালা আর রুমিই থাকতেন। দিনের বেলায়ও বাড়ির কলাপসিবল গেইটে তালা লাগানো থাকত।রোববার রাত ১১টার দিকে হঠাৎ ‘আগুন আগুন’ চিকিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা বেরিয়ে এসে আকলাক মিয়ার বাড়ির বাইরে রুমি এবং বাড়ির ভেতরে মালা বেগমকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় তাদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, দুজনেরই মৃত্য হয়েছে আগেই।

খবর পেয়ে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসম সামছুল ইসলাম, সার্কেল এসপি পারভেজ আলম রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

রুমির বড় ভাই পল্লী চিকিৎসক নজরুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিনই তিনি তার বোনের বাড়ির লোকজনের খোঁজ খবর রাখতেন। রোববার রাতে রুমি ফোন করে চোখের ব্যথার ওষুধ চেয়েছিলেন। এক প্রতিবেশীর মাধ্যমে রাত সাড়ে ৯টার দিকে তিনি বোনের জন্য ওষধ পাঠিয়ে দেন। তার ঘণ্টা দেড়েক পর তিনি লাশ উদ্ধারের খবর পান।

সাদুল্লাপুর গ্রামের এক ব্যক্তি জানান, আকলাকের বাড়ি থেকে তার মা ও স্ত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় ঘরের একটি টেবিলে চারটি চায়ের কাপ দেখেছেন তারা। তা থেকে তার ধারণা হয়েছে, হত্যাকারীরা হয়ত আগে থেকেই ওই বাড়িতে ছিল, তারা চাও খেয়েছে। তবে বাড়ি থেকে কোনো মালামাল খোয়া গেছে কি না, তা নিশ্চিত করতে পারেননি নিহতদের আত্মীয়রা।

পুলিশ ঘরের ভেতরে একপাটি জুতা ও একটি হাতঘড়ি পেয়েছে পড়ে থাকা অবস্থায়। সেগুলো কাদের, তাও নিশ্চিত করা যায়নি।

ওসি আতাউর রহমান বলেন, “ধারণা করা হচ্ছে, পরিকল্পিতভাবে তাদের হত্যা করা হয়েছে। নিহতদের শরীরে ধারারো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ বিষয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।”

বিডিনিউজ২৪

Facebook Comments

পাঠকের মতামত: