বাংলাদেশ, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ২০ ঘন্টা আগে
সর্বশেষ
  ||> শিশুদের মাঝে সিটিজেন ফাউন্ডেশনের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ  ||> ঝালকাঠিতে ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড  ||> র‌্যাবের অভিযানে প্যানেল চেয়ারম্যানসহ ৮ মাদক ব্যবসায়ী আটক  ||> মাহফিলের পর আটক হলেন ইসলামি বক্তা আব্দুল্লাহ্ আল আমিন  ||> গরু কচুরিপানা খেতে পারলে আমরা পারব না কেন : পরিকল্পনামন্ত্রী  ||> অবৈধ পাসপোর্ট করার চেষ্টায় এক রোহিঙ্গা আটক  ||> মেট্রোরেল এখন ঢাকায়  ||> গার্মেন্টস কারখানায় নামাজ বাধ্যতামূলক!  ||> লিটন তালুকদারের কাব্যগ্রন্থ বাসযোগ্য একখন্ড জমিচাই  ||> মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা আবদুস সুবহানের মৃত্যু  ||> ঝালকাঠিতে ‘গরীবের বন্ধু’ সংগঠনের ভিন্নধর্মী আয়োজনে বর্ষপুর্তি পালন  ||> নকলের দায়ে নলছিটিতে ৫ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার  ||> মুজিববর্ষে নির্মান করা হচ্ছে জাতির পিতার ম্যুরাল চিত্র ঝালকাঠি পৌরমেয়রের ভিন্নধর্মী আয়োজন  ||> একুশে বই মেলায় প্রকাশ পাচ্ছে রিজভীর প্রথম গ্রন্থ ঢাকার উন্নয়নে নবাবের ভূমিকা  ||> বেতন কর্তনের আদেশের পর সাক্ষী এলেন আদালতে  ||> আবারো মন্ত্রী হচ্ছেন আমু  ||> আবারো মন্ত্রী হচ্ছেন আমু  ||> নলছিটির তালতলা বাজারে চুরির ঘটনায় আতঙ্কিত ব্যবসায়ীরা  ||> নলছিটিতে ইভটিজিং, যুবক'র কারাদণ্ড  ||> বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলটকে হুমকিদাতা গ্রেফতার

Dabanol 24


সাতক্ষীরার পল্লীতে এই বৃদ্ধা আজও পাইনি বয়স্ক বা বিধবা ভাতার কার্ড

জানুয়ারি ১৫, ২০২০ ১২:৪৮ অপরাহ্ণ

আজহারুল ইসলাম সাদী,সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ

সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার শবদলপুর গ্রামের চন্দনা সরকার (৮০) সাত বছর আগে স্বামী পতিত পাবন সরকার মারা গেছেন। চার ছেলে ও তিন মেয়ের জননী তিনি। থাকেন অসুস্থ ছেলে জয়দেব সরকারের কাছে। জয়দেব সরকার নিজে ও তার স্ত্রী সুলতা সরকারও অসুস্থ। পুতনি খলিষানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। বাবা মায়ের সঙ্গে ঠাকুর মাকেও দেখভাল করে সে। তাই এখনো পর্যন্ত কোন রকমে বেঁচে আছেন চন্দনা সরকার।
অর্থিক স্বচ্ছলতা না থাকার কারণে তার কাপড় চোপড়ও ঠিক মত কেনা হয়না। স্থানীয় মেম্বর ও চেয়ারম্যানদের বলেও এতদিনে একটি বিধবা ভাতা বা বার্ধক্য ভাতার কার্ড জোটেনি। বড় লোকদের জন্য কম্বল জুটলেও প্রচণ্ড শীতে তিনি একটি কম্বল পাননি। আর কত বয়স হলে বিধবা ভাতা বা বার্ধক্য ভাতা কপালে জুটবে তা তিনি জানেন না। এ নিয়ে হতাশ চন্দনা সরকারের ছেলে জয়দেব ও পুত্রবধু সুলতা সরকার।
ইউপি সদস্য আব্দুস সাত্তারের কাছে এ ব্যাপরে জানতে চাইলে তিনি বলেন,
আমি এই বিধবার ব্যাপারে অজ্ঞাত, তাকে বার্ধক্য ভাতার কার্ড দেওয়ার ব্যাপারে কেউ আমাকে কিছু বলেনি,এ বার তিনি উদ্যোগ নেবেন বলে আশ্বাস দেন।

Facebook Comments

পাঠকের মতামত: